ক্রিকেট ফ্যাক্ট

সাকিবের লড়াকু ফিফটির পরও ১০৩ রানে অলআউট বাংলাদেশ

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচের প্রথম ইনিংসে সুবিধা করতে পারেনি বাংলাদেশ। ক্যারিবিয়ানদের বোলিং তোপে পড়ে মাত্র ১০৩ রানেই গুটিয়ে গেছে সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ দল।

এদিন টস হেরে প্রথম ইনিংসে ব্যাটিং করতে নামা বাংলাদেশ দলের দুই ওপেনার তামিম ইকবাল এবং মাহমুদুল হাসান জয়ের জুটি জমেনি। দলীয় মাত্র ১ রানের মাথায় কোনো রান না করেই সাজঘরে ফিরে যান মাহমুদুল হাসান জয়।

ওপেনিং জুটি বিচ্ছিন্ন হবার পর সুবিধা করতে পারেননি তিন নম্বরে নামা নাজমুল হোসেন শান্তও। ৫ বল মোকাবেলা করলেও কেমার রোচের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হয়ে রানের খাতা খোলার আগেই প্যাভিলিয়নে ফিরে যান তিনি।

শান্তর মত একই হাল হয় সদ্য অধিনায়কত্ব ছাড়া মুমিনুল হকেরও। ৬ বল মোকাবেলায় জেডন সেলসের শিকার হয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি। নামের পাশে কোনো রান না যোগ করেই প্যাভিলিয়নে ফিরতে হয় মুমিনুলকে।

দলীয় ১৬ রানে ৩ উইকেট হারানো বাংলাদেশ দলের হাল ধরার চেষ্টা করেন লিটন দাস এবং ওপেনার তামিম ইকবাল। তবে এই জুটি স্থায়ী হয় ৪১ রান পর্যন্ত। ৪৩ বল মোকাবেলায় ২৯ রান করে আলজেরি জোসেফের শিকারে পরিণত হয় তামিম মাঠ ছাড়লে বিচ্ছিন্ন হয় লিটনের সাথে তার জুটি।

পরের ওভারেই বিদায় নেন লিটনও। তার ব্যাট থেকে আসে ৩৩ বলে ১২ রান। দলের এমন বেহাল দশায় ওয়ানডে মেজাজে ব্যাট চালাতে থাকেন সাকিব আল হাসান। বাকি ব্যাটাররা যখন একে একে বিদায় নিচ্ছেন তখন অর্ধশতক তুলে নেন সাকিব।

সাকিব আল হাসানকে বাকি ব্যাটাররা কেউ যোগ্য সঙ্গ না দিতে পারলেও ৬৪ বলে ফিফটি হাঁকান তিনি। ৬৭ বলে এদিন সর্বোচ্চ ৫১ রান আসে সাকিবের ব্যাট থেকে। এছাড়া বলার মত রান করতে পারেননি বাকি ব্যাটাররা। দুই সেশন শেষ হবার আগেই বাংলাদেশ অলআউট হয় মাত্র ১০৩ রানে।

বল হাতে জেডেন সেলস এবং আলজেরি জোসেফ ৩টি করে ও কেমার রোচ ও কাইল মায়ার্স নেন ২টি করে উইকেট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button