ক্রিকেট ফ্যাক্ট

বাংলাদেশকে হারালে আনন্দ পাবে শ্রীলঙ্কার মানুষ

ভেঙে পড়েছে শ্রীলঙ্কার অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক ব্যবস্থা। ঋণের বোঝা পরিশোধ করতে না পেরে দেউলিয়া হয়ে যাওয়া দেশটির সরকার প্রধানও ইতোমধ্যে পদত্যাগ করে নতুন সরকার প্রধান শপথ নিয়েছে। সম্প্রতি দেশটির সরকারের তীব্র সমালোচনাও করেছেন শ্রীলঙ্কার সাবেক দুই গ্রেট ক্রিকেটার মাহেলা জয়াবর্ধনে ও কুমার সাঙ্গাকারা। দিন দিন বাজে পরিস্থিতির সম্মুখীন হওয়া লঙ্কাকে বাঁচাতে তাই নানা পদক্ষেপও নেয়া হচ্ছে।

টালমাটাল অবস্থা চলাকালেই শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল এসেছে বাংলাদেশ সফরে। দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে আসা লঙ্কানরা এখন কেবল মাঠে নামার অপেক্ষায়। মাঠে নামার আগে অবশ্য লঙ্কান অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নের ভাবনায় রয়েচে নিজ দেশের কথাও। নিজ দেশের সার্বিক অবস্থা সরাসরি ব্যাখ্যা না করলেও সেখানকার পরিস্থিতি কি চলছে তা যে সবারই জানা সেটাই মনে করিয়ে দেন করুনারত্নে।

তবে দেশের বেহাল দশা থাকলেও আপাতত তার দল মনোযোগ দিতে চায় ক্রিকেটেই। মাঠের ক্রিকেটে নিজেদেরর সেরা পারফম্যান্স বের করে এনে জয় পেতে মুখিয়ে রয়েছে তারা। করুনারত্নে বলেন, ‘’সেখানে কী হচ্ছে সবাই জানে। তবে আমরা এখানে ক্রিকেট খেলতে এসেছি এবং এটাতেই মনোযোগ রাখছি। আমরা মানুষকে একটা ভালো ফলাফল এনে দিতে পারি। এ মুহূর্তে এটাই আমাদের লক্ষ্য।‘’

জনপ্রিয়তার দিক থেকে শ্রীলঙ্কায় ক্রিকেট শীর্ষে। দেশের যত বাজে অবস্থাই থাকুক না কেন লঙ্কার মানুষ টিভি অন করে বসবে ক্রিকেট দেখার জন্য এমন বিশ্বাস রয়েছে করুনারত্নের। তার মতে বাংলাদেসেহের বিপক্ষে যদি তারা জয়লাভ করতে পারে তাহলে নিজ দেশের মানুষকে আনন্দে ভাসাতে পারবে ক্রিকেট দল।

লঙ্কান অধিনায়কের ভাষ্য, ‘’ক্রিকেটই শ্রীলঙ্কায় এক নম্বর খেলা। সবাই আমাদের জিততে দেখার জন্য মুখিয়ে থাকে। দেশে যত সমস্যাই হোক না কেন, শ্রীলঙ্কার খেলা চলাকালে সবাই টিভি অন করে থাকে। আমি মনে করি দেশের অবস্থাটা সবাই বুঝতে পারছি এবং একটি সিরিজ জয় দেশের মানুষকে আনন্দ এনে দিতে পারে।‘’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button