ক্রিকেট ফ্যাক্ট

আশরাফুলের ঐতিহাসিক সেঞ্চুরিতে জয় ব্রাদার্স ইউনিয়নের

লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে অভিষেক হবার পর ব্রাদার্স ইউনিয়নের জার্সিতে প্রথমবারের মত ১৪১ রানের সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংস খেলে দলকে জিতিয়েছেন আশরাফুল।

ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে বিকেএসপিতে মুখোমুখি হয়েছে ব্রাদার্স ইউনিয়ন এবং রুপগঞ্জ টাইগার্স ক্রিকেট ক্লাব। এদিন প্রথমে ব্যাটিং করতে নামা ব্রাদার্স ইউনিয়ন। ওপেনার ইমতিয়াজ হোসাইন সাজঘরে ফিরে যান কোনো রান না করেই। আরেক ওপেনার মোহাম্মদ আশরাফুল এদিন ব্যাট হাতে দলের হয়ে হাল ধরেন।

তিন নম্বরে নামা মাইশুকুরকে নিয়ে দলকে এগিয়ে নিতে থাকা আশরাফুল অর্ধশতক হাঁকিয়ে স্কোর বড় করতে থাকে। তার সাথে থাকা মাইশুকুরও স্কোর বড় করতে থাকেন অর্ধশতক হাঁকিয়ে।

৯২ বল মোকাবেলা করা মাইশুকুর সাজঘরে ফিরে যান ৬৮ রান করে। মাইশুকুর ফিরে গেলেও শতক হাঁকান আশরাফুল। মিনহাজুল আবেদিনের ৩০ রানের পর ব্যাট হাতে ক্যামিও ইনিংস খেলেন লঙ্কান ব্যাটার চতুরঙ্গ ডি সিলভা।

মাত্র ২৫ বল মোকাবেলায় ৫১ রান করে ডি সিলভা সাজঘরে ফিরে যাবার পর ব্যাট হাতে ইনিংস শেষ করে আসেন আশরাফুল। ১৩৯ বল মোকাবেলায় ১৪১ রান করে অপরাজিত থাকেন আশরাফুল। এই ইনিংসে আশরাফুল হাঁকিয়েছেন ১৬টি চার এবং ১টি ছক্কা। আশরাফুলের দুর্দান্ত এই ইনিংসে ভর করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ৩০৯ রান করে ব্রাদার্স ইউনিয়ন।

৩১০ রানের লক্ষ্যে খেলতে নামা রূপগঞ্জ টাইগার্স ক্রিকেট ক্লাব ওপেনার মিজানুর রহমান সাজঘরে ফিরে যান দলীয় ১৩ রানের মাথায়। অপর ওপেনার জাকির হাসানের সাথে বাবা অপরাজিথ মিলে খানিক সময় টিকে থাকলেও জাকির ৩৩ ও অপরাজিথ ৩৪ রানে ফেরত গেলে লড়াই চালান ফজলে মাহমুদ ও মার্শাল আইয়ুব।

ফজলে মাহমুদ ১০০ বলে সেঞ্চুরি পূর্ণ করলেও মার্শাল আইয়ুব খেলেন ৫৮ রানের ইনিংস। নিচের সারিতে আর কোনো ব্যাটার সুবিধা করতে না পারলে রূপগঞ্জ ১৪ বল বাকি থাকতে অল আউট হয় ২২৩ রানে। ফলে তারা ম্যাচ হারে ৩৬ রানে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button